দেশের ২ বিভাগে পরীক্ষামূলক ৫জি চালালো গ্রামীনফোন

0
54

সারাবেলা রিপোর্ট: মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন ঢাকা এবং চট্টগ্রামের কিছু অংশ পরীক্ষামূলকভাবে ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক চালু করেছে। যেটিকে যোগাযোগের বাংলাদেশের জন্য একটি বড় অর্জন হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে।

এই অর্জনের মধ্য দিয়ে ডিজিটাল কানেক্টিভিটি পার্টনার এবং দেশের টেক-সার্ভিস লিডার হিসেবে স্মার্ট-বাংলাদেশ বিনিমার্ণে অবদান রাখার পথে রয়েছে বলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায় গ্রামীণফোন।

গ্রামীণফোন গ্রাহকের ফাইভ-জি সমর্থিত মোবাইল ফোনে ফাইভ-জি ব্যবহার করা যাবে বলে গ্রামীণফোন সূত্রে জানা গেছে। তবে এজন্য ডিভাইস প্যাচ প্রয়োজন হবে। এই সেবা শুরুর বিষয়টিকে গ্রামীণফোন “অনেকটা ট্রায়ালের মতো” বলে অভিহিত করেছে।

গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী ইয়াসির আজমান-সহ প্রতিষ্ঠানটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা রাজধানীর জিপি হাউজের ইনোভেশন ল্যাবে ফাইভজি ট্রায়ালের অভিজ্ঞতা নেন। এ ইনোভেশন ল্যাবটি এমনভাবে ডিজাইন করা হয়েছে, যেখান থেকে ধাপে ধাপে ফাইভজি টেস্ট ও এর ব্যবহারিক অভিজ্ঞতার বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করা হবে। এর পাশাপাশি, প্রতিষ্ঠানটি শিগগিরই অন্যান্য বিভাগীয় শহরে ফাইভজি ট্রায়াল পরিচালনার পরিকল্পনা রয়েছে।

গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী ইয়াসির আজমান বলেন, “চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের সম্ভাবনা উন্মোচনের মাধ্যমে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্যপূরণে আমরা ফাইভজি কানেক্টিভিটি ও এর ইউজ কেসের ট্রায়াল পরিচালনা করছি।”

তিনি আরও বলেন, “বর্তমানে আমরা দেশজুড়ে বিস্তৃত ফোরজি নেটওয়ার্ক শক্তিশালী করতে কাজ করে যাচ্ছি; একইসাথে, আমরা ভবিষ্যতের সক্ষমতা তৈরি, ফাইভজি ইকোসিস্টেম বিনির্মাণ এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, আইওটি, ব্লকচেইন ও রোবটিক্সের মাধ্যমে শিল্পখাতের জন্য বিভিন্ন সলিউশন নিয়ে আসতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।”

 

আজসারাবেলা/সংবাদ/জাই/বিজ্ঞান- প্রযুক্তি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here