সাংবাদিকরা বাড়াবাড়ি করছে: রেলমন্ত্রীর স্ত্রীর ভাগ্নে

0
45

পাবনা প্রতিনিধি: বিনা টিকিটে ট্রেন ভ্রমণকারী রেলমন্ত্রীর সেই আত্মীয় ইমরুল কায়েস প্রান্ত গণমাধ্যমের অবস্থানে ক্ষুব্ধ। রবিবার এই ঘটনা তদন্তে গঠিত কমিটির সামনে সাক্ষ্য দিতে গিয়ে সাংবাদিকদের উপর ক্ষোভ ঝাড়েন।

তিনি বলেন, গত কয়েকদিন ধরে সংবাদকর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নে তিনি ও তার পরিবার ‘বিরক্ত ও বিব্রত’। আমরা সামগ্রিক বিষয়টিকে ইতিবাচকভাবেই দেখছিলাম, অথচ সাংবাদিকরা সামান্য একটি বিষয়কে অহেতুক টানা-হেঁচড়া করেছেন।

উপস্থিত সাংবাদিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা এই এ বিষয়টি নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি করছেন, যেটা না করলেও পারতেন। আমি যা বলার, তদন্ত কমিটিকে বলেছি। আপনাদের সাথে আমার কোনো কথা নেই।

তিনি পাবনার ঈশ্বরদীতে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় কার্যালয়ে তদন্ত কমিটির সামনে বক্তব্য দিতে এসেছিলেন। টিটিই শফিকুলসহ প্রত্যক্ষ্যদর্শী কয়েকজনও বক্তব্য দেন তদন্ত কমিটির কাছে।

আলোচিত এই ঘটনার পর প্রান্তর বাড়ি ঈশ্বরদী পৌরসভার নূর মহল্লায় সংবাদকর্মীরা সংবাদ সংগ্রহে গেলে তাদেরও গালাগালি করেন ওই বাড়ির লোকজন।

ঈশ্বরদীর ওই বাড়ি প্রান্তের নানা বাড়ি। তার বাবা প্রবাসে থাকেন। মা ইয়াসমিন আক্তার নিপা সন্তানসহ নূর মহল্লায় বাবার বাড়িতে থাকেন। নিপার ফুপাত বোন হচ্ছেন শাম্মী আক্তার মনি, যার সঙ্গে গত বছর রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজনের বিয়ে হয়।

গত বৃহস্পতিবার (৫ মে) রাতে পাবনার ঈশ্বরদী রেল জংশন থেকে টিকিট ছাড়া ট্রেনে ওঠেন রেলপথমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয় দেয়া তিন যাত্রী। টিকিট না কাটলেও তারা রেলের এসি কেবিনের সিট দখল করেন। এতে রেলের ভ্রাম্যমাণ টিকিট পরীক্ষক (টিটিই) তাদের জরিমানা করেন। পরে ওই তিন যাত্রী তাদের সঙ্গে অসদাচরণ করা হয়েছে বলে রেলের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করেন।

সেই অভিযোগের ভিত্তিতে টিটিই শফিকুল ইসলামকে বৃহস্পতিবার রাতেই সাময়িক বরখাস্ত করে রেল কর্তৃপক্ষ।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here