সমাজকর্মী সৈয়দা রত্না ও তার ছেলেকে তুলে নিয়ে গেছে পুলিশ

0
90
ছবি: সমাজকর্মী সৈয়দা রত্না

সারাবেলা ডেস্ক: ঢাকার তেতুলতলা খেলার মাঠ রক্ষা আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া সমাজকর্মী সৈয়দা রত্না ও তার ছেলে মোহাম্মদ ঈসা আব্দুল্লাহকে তুলে নিয়ে গেছে কলাবাগান থানা পুলিশ।

এলাকার বাসিন্দা মাহমুদুর রহমান জানান, তেতুলতলা মাঠে কলাবাগান থানা কর্তৃপক্ষ যে সীমানা দেয়াল নির্মাণ করছে, রত্না ও আবদুল্লাহ তার ভিডিও করছিলেন। এ অবস্থায় সকাল ১১টার দিকে পুলিশ তাদের তুলে নিয়ে যায়।

সৈয়দা রত্নার মেয়ে শিউতি সাগুফতা গণমাধ্যমে বলেন, ‘গত রাত থেকেই তেতুলতলা মাঠে ইট-সুড়কি ফেলছিল পুলিশ। সকালে মা মাঠের সামনে গিয়ে ওই ঘটনাটির ফেসবুকে লাইভ করছিলেন। তখন তাকে আটক করা হয়। এরপর আমার ভাই এইচএসসি পরীক্ষার্থী মোহাম্মদ ঈসা আব্দুল্লাহ্ বাসা থেকে বেড়িয়ে রাস্তায় আসলে তাকেও আটক করা হয়।’

সাগুফতা জানান, তিনি এখন কলাবাগান থানায় আছেন। তার ভাইকে লকআপে রাখা হয়েছে। মা সৈয়দা রত্নাকে প্রথমে লকআপে রাখা হলেও সেখানে তিনি অস্বস্তি বোধ করায় এখন একটি কক্ষে রাখা হয়েছে।

যোগাযোগ করা হলে পুলিশের নিউমার্কেট জোনের সহকারী কমিশনার শরীফ মোহাম্মদ ফারুকুজ্জামান বলেন, ‘কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব পালনে বাধা দেওয়ায় ২ জনকে তুলে আনা হয়েছে।’

গত ৩১ জানুয়ারি ঢাকা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় কলাবাগান থানার জন্য স্থাপনা নির্মাণে তেতুলতলা খেলার মাঠের জমি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশকে (ডিএমপি) হস্তান্তর করে।

তবে শিশুদের স্বার্থে খেলার মাঠটি আগের অবস্থায় রাখার দাবি নিয়ে কয়েক মাস ধরে আন্দোলন করে আসছেন এলাকার বাসিন্দারা।

 

আজসারাবেলা/সংবাদ/জাই/অপরাধ/রাজধানী

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here