জাতীয় পার্টিকে জনগণের দলে পরিণত করতে হবে: বিদিশা

0
129

সারাবেলা ডেস্ক: জাতীয় পার্টিকে ভদ্রলোকের দলে পরিণত করতে চান বলে জানিয়েছেন দলটির সাবেক চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের স্ত্রী বিদিশা এরশাদ। তিনি বলেছেন, ‘জাতীয় পার্টিকে জনগণের দলে পরিণত করতে হবে। সেই উদ্দেশে জাতীয় পার্টির পুনর্গঠন কমিটিতে হাত দিয়েছি। আমার সঙ্গে জাতীয় পার্টির পুরানো এমপি ও নেতারা যোগাযোগ করছেন। তারা আমাকে ভুলে যাননি।’

শনিবার (২৩ অক্টোবর) চট্টগ্রামের একটি ক্লাবে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বিদিশা এরশাদ বলেন, ‘স্বার্থান্বেষী ও ধান্ধাবাজের কবজায় এখন জাতীয় পার্টি। এটি এমন একটা দল যেখানে মত প্রকাশ করা যায় না। কারণ সেখানে আশপাশে কিছু ধান্ধাবাজ লোকজন আছে। এরা কেবল নিজের স্বার্থটাই বোঝে। এদের কবল থেকে জাতীয় পার্টিকে বের করে আনতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘যিনি গভীর রজনীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান নিযুক্ত হয়েছেন, তার নেতৃত্বের প্রতি জাতীয় দলের নেতৃবৃন্দ অনাস্থা প্রকাশ করেছে। দলের নেতাকর্মীরা বিশ্বাস করে রওশন এরশাদ ও বিদিশা এরশাদের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টি নিরাপদ। জাতীয় পার্টিকে পুনর্গঠনের জন্য কাজ শুরু করেছি। আমার নেতৃত্বে যেন জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় যেতে পারে।’

বিদিশা এরশাদ বলেন, ‘বর্তমানে রাজনৈতিক দলগুলো যথাযথ ভূমিকা পালন করতে পারছে না আর জাতীয় পার্টির তো প্রশ্নই আসে না। জাতীয় পার্টি ঢাকায় বসে বসে ফেসবুকে বিবৃতি দেয়। এরশাদের কাছাকাছি আমি ছিলাম। তিনি সবসময় দেশের মানুষের কথা চিন্তা করতেন। সবকিছু শেয়ার করতেন। এরশাদ প্রাদেশিক সরকার গঠন করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সেটা হয়নি।’

তিনি বলেন, ‘এ দেশের মানুষ সাম্প্রদায়িক নয়। স্বাধীনতার পর থেকে এ দেশে যত সাম্প্রদায়িক হামলা হয়েছে সবই রাজনৈতিক। রাজনৈতিক দলগুলো সংখ্যালঘুদের ফুটবলের মতো ব্যবহার করছে। শুধু ভোটের সময় তাদেরকে ব্যবহার করা হয়। হিন্দুরা যদি কিছু ভালো পেয়ে থাকেন, তা পেয়েছেন এরশাদের আমলে। পুলিশ- প্রশাসন তাদের দায়িত্ব ঠিকমতো পালন করতে পারেনি। তাই কুমিল্লার ঘটনার পরে সেটার পুনরাবৃত্তি হলো রংপুর, ফেনী, নোয়াখালীসহ বিভিন্ন জায়গায়। কিন্তু কেউ সর্তক হলো না।’

আজ সারাবেলা/সংবাদ/সিআ/জাতীয়

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here