দক্ষিণ আফ্রিকাকেও হারাল আয়ারল্যান্ড

0
38

স্পোর্টস ডেস্ক : আইরিশরা কখন কী করে ফেলে বোঝা মুশকিল। তাদের দিনে কিসের পাকিস্তান, কিসের ইংল্যান্ড। আইরিশদের হারানোর তালিকায় এবার যুক্ত হলো দক্ষিণ আফ্রিকা। এর আগে বাংলাদেশ, ইংল্যান্ড, পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো দলকে হারিয়েছে।

মঙ্গলবার ডাবলিনের মালাহাইড ক্রিকেট মাঠে ওয়ানডে সুপার লিগের ম্যাচে প্রোটিয়াদের হারিয়েছে ৪৩ রানে। ১৪ বছরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এটি ছিল আইরিশদের ১৫ তম ম্যাচ। আগের ১৪টি ম্যাচেই হারে আয়ারল্যান্ড।

ঘরের মাঠে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ পরিত্যক্ত হয় বৃষ্টির কারণে। দ্বিতীয় ম্যাচ জয়ে আইরিশরা এগিয়ে গেল ১-০ ব্যবধানে।

এদিন টস জিতে স্বাগতিকদের ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় প্রোটিয়া অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা। ব্যাট করতে নেমে আইরিশরা ২৯০ রান তোলে ৫ উইকেটে।

ওপেনার পল স্টার্লিংকে ২৭ রানে বিদায় করেন কেশব মহারাজ। তবে আরেক ওপেনার অ্যান্ডি বিলবার্নি ৬০ রানের জুটি গড়েন অ্যান্ডি ম্যাকব্রিনকে নিয়ে।

৪৭ বলে ৩০ রান করে শামসির বলে ফেরেন ম্যাকব্রিন। তবে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন আইরিশ অধিনায়ক বিলবার্নি। ১১৭ বলে ১০২ রানে বিলবার্নিকে বিদায় করেন কাগিসো রাবাদা।

এরপর চতুর্থ উইকেট জুটিতে ডকরেল আর টেক্টর ঝড় বইয়ে দেন প্রোটিয়া বোলারদের উপর। দুজন মিলে ৪৬ বলে যোগ করেন ৯০ রান। টেক্টর করেন ৭৯ রান, ডকরেল করেন ৪৫ রান।

প্রোটিয়াদের পক্ষে ২ উইকেট নেন অ্যান্ডিল ফেলুকাও। ১ উইকেট করে নেন কাগিসো রাবাদা, কেষব মহারাজ ও তাবারিজ শামসি।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রোটিয়া ওপেনার এইডেন মার্করামের ৫ রানে ফেরা দিয়ে শুরু হয় ইনিংস। এরপর টেম্বা বাভুমারও বিদায় হয় ১০ রান করে।

রাসিভেনডার দুসেনকে নিয়ে জানেমান মালান গড়েন ১০৮ রানের জুটি। দলীয় ১৫৯ রানের মাথায় মালানকে ৮৪ রানে ফেরান ডকরেল।পরের ওভারেই দুসেনকে ৪৯ রানে ফেরান ম্যাকব্রিন। জোড়া উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া প্রোটিয়া দলের আর ঘুরে দাঁড়ানো হয়নি।

ডেভিড মিলারের ২৪, কেষব মহারাজের ১৭ রান আর বাকিদের ছোট ছোট ইনিংসে কেবল হারের ব্যবধানটাই কমে। প্রোটিয়ারা অল-আউট হয়ে যায় ৪৮.৩ ওভারে ২৪৭ রানে।

৪৩ রানের জয়ে সিরিজে এগিয়ে যায় আইরিশরা। ২টি করে উইকেট নেন মার্ক আদির, জশ লিটল ও ম্যাকবার্নি। ১ উইকেট করে নেন ক্রেইগ ইয়ং, সিমি সিং ও ডকরেল।

আজ সারাবেলা/কেটি/খেলাধুলা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here