লালগালিচায় সাদ-বাঁধন

0
74

সারাবেলা রিপোর্ট: কান চলচ্চিত্র উৎসবের চতুর্থ দিন ৭৪তম আসরের লালগালিচায় হেঁটেছেন বাংলাদেশি ছবি ‘রেহানা মরিয়ম নূর’-এর আট কলাকুশলী। কান উৎসবের অফিশিয়াল সিলেকশনের ইতিহাসে বাংলাদেশের প্রথম ছবি ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ একের পর এক সম্মান পাচ্ছে। এবার আয়োজকরা লালগালিচায় এর কলাকুশলীদের বরণ করে নিলেন। ৯ জুলাই স্থানীয় সময় রাত ৯টা ৪০ মিনিটে পালে দে ফেস্টিভ্যাল ভবনের সামনের চত্বরে ঝা-চকচকে গাড়িতে চড়ে আসে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’-এর টিম।

গাড়ি থেকে নেমে কিছুক্ষণ লালগালিচার শুরুর প্রান্তে পাশাপাশি দাঁড়িয়ে থাকেন সবাই। টিকিট নিয়ে ছবি দেখতে যাওয়ার সময় অনেকে লালগালিচায় হেঁটে গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরের দিকে যেতে থাকেন। কিন্তু অফিশিয়াল সিলেকশনের তারকারা এলে পুরো লালগালিচা ফাঁকা করা হয় তাদের জন্য। ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ ছবি পেয়েছে এই সম্মান। মাইক্রোফোনে জানানো হয়, আঁ সাতের্ঁ রিগা বিভাগে প্রদর্শিত হয়েছে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। এরপর একে একে উচ্চারণ করা হয় পরিচালক আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদ, প্রযোজক জেরেমি চুয়া, নির্বাহী প্রযোজক এহসানুল হক বাবু, অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন, চিত্রগ্রাহক তুহিন তামিজুল, প্রোডাকশন ডিজাইনার আলী আফজাল উজ্জল, শব্দ প্রকৌশলী শৈব তালুকদার ও কালারিস্ট চিন্ময় রায়ের নাম।

সবাই হাসিমুখে আলোকচিত্রীদের দিকে তাকিয়েছেন। এরপর সিঁড়ি বেয়ে তারা ঢুকে যান গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে। লালগালিচায় নির্মাতা সাদ আর অভিনেত্রী বাঁধনের রসায়ন সবার নজর কেড়েছে। এর আগেও যখন সিনেমা দেখে বাঁধন কান্নায় ভেঙে পড়েন তখন সাদ তাকে অভিভাবকের মতো সান্ত¡না দিয়েছেন। হাত ধরে স্টেজ থেকে নামিয়েছেন। এই দৃশ্যগুলো দর্শককে অন্যরকম তৃপ্তি দিচ্ছে। সিনেমার টিমের প্রতি এমন সম্মানজনক মনোভাবই তো আশা করেন সবাই। গত ৭ জুলাই পালে দে ফেস্টিভ্যাল ভবনের সাল দুবুসি প্রেক্ষাগৃহে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ ছবির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হয়েছে। সেদিন প্রদর্শনী শেষে দর্শকরা দাঁড়িয়ে অভিবাদন জানান সাদসহ সবাইকে। কানে আরও দুটি শো হওয়ার কথা সিনেমাটির।

আজসারাবেলা/সংবাদ/মাখ/বিনোদেন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here