নারায়ণগঞ্জে জুস কারখানায় অগ্নিকান্ড, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩

0
182

সারাবেলা রিপোর্ট: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে একটি জুস কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে আহত মোরসালিন (২৮) আরও এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ওই ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ জনে।  এ ছাড়া এখনও অনেকে নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) রাত ১০ টার দিকে কারখানার শ্রমিকরা ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ ও গাড়ি ভাঙচুর করে। শুক্রবার সকাল ৭ টা পর্যন্ত আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টায় উপজেলার ভুলতা কর্ণগোপ এলাকার  হাশেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজের সেজান জুস কারখানার ৬ তলা ভবনের নিচতলা থেকে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এ সময় প্রাণ বাঁচাতে ভবনটি থেকে লাফিয়ে পড়েন শ্রমিক স্বপ্না রানী (৪৪) ও মিনা আক্তার (৩৪)। ঘটনাস্থলেই দুজন মারা যান।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ফায়ার সার্ভিসের কাঞ্চন, ডেমরা ও ঢাকা ফায়ার স্টেশনসহ ১৭টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টায় উপজেলার ভুলতা কর্ণগোপ এলাকার  হাশেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজের সেজান জুস কারখানার ৭ তলা ভবনের নিচতলায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

আগুনে দগ্ধ ৮-১০ জনকে  জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অন্যদের রূপগঞ্জের ইউএস বাংলা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে।

শ্রমিক ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা গেছে , কর্ণগোপ এলাকায় অবস্থিত সজীব গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান সেজান জুস উৎপাদনে ৭ তলা ভবন বিশিষ্ট কারখানায় প্রায় ৭ হাজার শ্রমিক কর্মচারী কর্মরত। বৃহস্পতিবার বিকেলে হঠাৎ ভবনের নিচতলায় একটি ইউনিটে আগুন দেখতে পায় শ্রমিকরা। মুহুর্তেই আগুন পুরো ভবনে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময়  শ্রমিকরা ছোটাছুটি শুরু করে। অনেকেই প্রাণে বাঁচতে ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে। এ সময় গুরুতর আহতবস্থায় শ্রমিকদের হাসপাতালে নেওয়া হলে স্বপ্না রানী ও মিনা আক্তার নামের দুই নারী শ্রমিককে মৃত ঘোষণা করেন ইউএস ইউএস বাংলা মেডিকেল কলেজের দায়িত্বরত চিকিৎসক।

এদিকে রাত সাড়ে ৮টার দিকে ভবন থেকে উদ্ধার হওয়া এক নারী শ্রমিক জানান, ভেতরে ৮-১০ জন আটকে পড়েছেন।

অগ্নিকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করে নারায়ণগঞ্জ জেলা ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক মো. আব্দুল আল আরেফিন জানান, ৫টা ৫০ মিনিটে আগুনের খবর পাই আমরা। এরপর থেকে কাঞ্চন, ডেমরা ও ঢাকাসহ প্রায় ১৪টি ইউনিট ঘটনাস্থলে কাজ করছে। এছাড়া অগ্নিকাণ্ডের কারণ এখনও জানা যায়নি। আগুন না নেভা পর্যন্ত নির্দিষ্ট করে কিছু বলা যাচ্ছে না।

আজসারাবেলা/সংবাদ/মাখ/সারাদেশ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here