কানাডায় পূর্ব-পরিকল্পিতভাবে মুসলিম পরিবারের চারজনকে হত্যা

0
28

সারাবেলা রিপোর্ট: কানাডায় পরিকল্পিতভাবে গাড়িচাপা দিয়ে একটি মুসলিম পরিবারের চার সদস্যকে হত্যা করা হয়েছে। স্থানীয় সময় সোমবার (০৭ জুন) সন্ধ্যায় অন্টারিও প্রদেশের লন্ডন শহরে এ ঘটনা ঘটে। দেশটির পুলিশ এ ঘটনাকে ‘পূর্ব-পরিকল্পিত’ হত্যাকাণ্ড বলে জানিয়েছে।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো নিহতদের প্রতি গভীর শোক এবং ধর্মবিদ্বেষের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। এক টুইটার বার্তায় তিনি বলেন, আমি খবরটি শুনে আতঙ্কিত, কানাডায় ইসলামবিদ্বেষ বা যে কোনো ধর্মবিদ্বেষীদের স্থান হবে না।

জানা যায়, রাস্তা পার হওয়ার জন্য ওই মুসলিম পরিবারের পাঁচ সদস্য সড়কের পাশে অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় তাদের ওপর গাড়ি চালিয়ে দেওয়া হয়। এতে পরিবারটির চার সদস্য নিহত হন। তাদের মধ্যে দুইজন নারী।

সোমবারের ওই নৃশংস হামলায় মুসলিম পরিবারটির ৯ বছরের আরেক শিশুও গুরুতর আহত হয়েছে। তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

পুলিশ হতাহতদের নাম প্রকাশ করেনি। নিহতদের মধ্যে আছেন ৭৪ বছরের এক বৃদ্ধা, ৪৬ বছরের এক পুরুষ, ৪৪ বছরের এক নারী এবং ১৫ বছরের একটি কিশোরী।

নাথানিয়াল ভেল্টম্যান নামের ওই হামলাকারীর বয়স ২০ বছর। পূর্বপরিকল্পিতভাবে তিনি এ হামলাটি চালিয়েছেন, যাকে হেইট ক্রাইম বা বিদ্বেষমূলক অপরাধ হিসেবে দেখছেন অনেকে। হামলার পর ঘটনাস্থল থেকেই নাথানিয়ালকে আটক করেছে কানাডিয়ান পুলিশ। তবে হামলাকারী কোন হেইট গুপের সদস্য কিনা তা এখনো পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

এক সংবাদ সম্মেলনে ওন্টারিও পুলিশ সুপার বলেন, হত্যার ধরন দেখে এটাকে হেইট ক্রাইম বলা যেতে পারে। তবে ঘটনাটি নিয়ে আরও পর্যবেক্ষণ দরকার।

সূত্র: বিবিসি।

আজসারাবেলা/সংবাদ/দীব/আন্তর্জাতিক

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here