বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে বাংলাদেশের অবনতি

0
166

সারাবেলা রিপোর্ট: বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে গত বছরের তুলনায় এক ধাপ অবনতি ঘটেছে বাংলাদেশের। বিশ্বজুড়ে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে কাজ করা ফ্রান্সের প্যারিসভিত্তিক সংগঠন রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারসের (আরএসএফ) ২০২১ সালের মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে এই অবনতি ঘটেছে।

মঙ্গলবার প্রকাশিত আরএসএফের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্বের ১৮০টি দেশের মধ্যে ২০২১ সালে বাংলাদেশের অবস্থান ১৫২তম। গত বছর এই সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ১৫১তম ছিল। তার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৯ সালে বাংলাদেশের এই অবস্থান ছিল ৫০তম। এ নিয়ে টানা দুই বছর বাংলাদেশের অবস্থানের অবনতি ঘটলো।

তবে এই তালিকায় টানা পঞ্চমবারের মতো শীর্ষে আছে নরওয়ে এবং একেবারে তলানিতে রয়েছে আফ্রিকার দেশ ইরিত্রিয়া। ফরাসী বার্তাসংস্থা এএফপি বলছে, আরএসএফের বার্ষিক এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে— জরিপকৃত ১৮০টি দেশের মধ্যে কমপক্ষে তিন-চতুর্থাংশ দেশে সাংবাদিকতা আংশিকভাবে অবরুদ্ধ হয়েছে।

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে দেখা যায়, বিশ্বের ৭৩টি দেশে সাংবাদিকতা পুরোপুরি অবরুদ্ধ অথবা মারাত্মক বাধাগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া অন্য ৫৯টি দেশে ছিল নিয়ন্ত্রিত। অনেক দেশের সরকার করোনাভাইরাস মহামারিকে গণমাধ্যম দমনের ক্ষেত্রে আরো খারাপভাবে ব্যবহার করেছে।

এক বিবৃতিতে আরএসএফের মহাসচিব ক্রিস্টোফ ডেলয়ার বলেছেন, গুজবের বিরুদ্ধে সর্বোত্তম ভ্যাকসিন হলো সাংবাদিকতা। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে এর উৎপাদন এবং বিতরণ প্রায়ই রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, প্রযক্তিগত— এমনকি কখনও কখনও সাংস্কৃতিক কারণেও বাধাগ্রস্ত হয়।

মুক্ত গণমাধ্যম সূচকের শীর্ষ ১০ দেশ

১. নরওয়ে

২. ফিনল্যান্ড

৩. সুইডেন

৪. ডেনমার্ক

৫. কোস্টারিকা

৬. নেদারল্যান্ডস

৭. জ্যামাইকা

৮. নিউজিল্যান্ড

৯. পর্তুগাল

১০. সুইজারল্যান্ড

সূচকের তলানির ১০ দেশ

১. ইরিত্রিয়া

২. উত্তর কোরিয়া

৩. তুর্কমেনিস্তান

৪. চীন

৫. জিবুতি

৬. ভিয়েতনাম

৭. ইরান

৮. সিরিয়া

৯. লাওস

১০. কিউবা

আজসারাবেলা/সংবাদ/রই/মিডিয়াওয়াচ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here