১০ আসামি আদালতে, ১০ দিন করে রিমান্ড চায় পুলিশ

সারাবেলা রিপোর্ট: বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেলসহ ১০ নেতাকে আদালত চত্বরে হাজির করেছে চকবাজার থানা পুলিশ। ঢাকা মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াছির আহসান চৌধুরীর আদালতে তাদের উপস্থাপন করা হবে।

মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) দুপুর ২টার দিকে ওই ১০ শিক্ষার্থীকে আদালত চত্বরে নিয়ে আসা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ আসামির প্রত্যেকের জন্য ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করা হবে।

মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াছির আহসান চৌধুরীর আদালতে বিকেল ৩টায় রিমান্ড শুনানি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

আবরার বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিকস বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি শেরেবাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়া শহরের মুক্তিযোদ্ধা রোডে। বাবার নাম বরকত উল্লাহ।

সোমবার (৭ অক্টোবর) ভোর ৪টার দিকে তার নিথর দেহ পাওয়া যায় হলের সিঁড়ির নিচে। তার পুরো শরীরে ছিল আঘাতের চিহ্ন। সহপাঠীদের অভিযোগ, ছাত্রলীগের নেতারা পিটিয়ে মেরে ফেলেছেন আবরারকে।

আবরার হত্যার ঘটনায় পুলিশ যে কয়েকজনকে আটক করেছে, তাদের মধ্যে রয়েছেন— বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফুয়াদ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এবং মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী অনিক সরকার, ক্রীড়া সম্পাদক ও নেভাল আর্কিটেকচার অ্যান্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের একই বর্ষের মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন, ছাত্রলীগ নেতা রবিন, মুন্না, তানভীরুল আরেফিন ইথান, অমিত সাহা ও আল জামি।

আজ সারাবেলা/সংবাদ/সিআ/আদালত

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.