সৌদির নেতৃত্বকে ‘স্বৈরতন্ত্র’ বলে মন্তব্য মার্কিন সিনেটরের

সারাবেলা রিপোর্ট: সৌদি আরবের নেতৃত্বকে ‘বর্বর স্বৈরতন্ত্র’ বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স। রবিবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার টুইটার বার্তায় ইরানকে ইঙ্গিত করে যুক্তরাষ্ট্রের ‘রণসাজ’র কথা বলার পর ওই রিটুইটে এই মন্তব্য করেন স্যান্ডার্স।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানকে ইঙ্গিত করে বলেন, আমরা রণসাজে প্রস্তুত (লকড অ্যান্ড লোডেড)। এখন তথ্যের যথার্থতার ওপর অ্যাকশন নির্ভর করছে। সৌদির কাছ থেকে শুনতে চাই কোন পন্থায় সামনে (অ্যাকশনে) যেতে পারি।

ট্রাম্পের এমন কথায় স্যান্ডার্স রিটুইট করে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান একেবারে স্পষ্ট। প্রেসিডেন্ট নন- কেবল কংগ্রেসই যুদ্ধ ঘোষণা করতে পারে। বর্বর সৌদি স্বৈরতন্ত্র বললেই মধ্যপ্রাচ্যে আরেকটি যুদ্ধ বাঁধানোর কর্তৃত্ব কংগ্রেস আপনাকে দেবে না।
উল্লেখ্য, সিনেটর স্যান্ডার্স বিগত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টি থেকে মনোনয়ন চেয়েছিলেন। ২০২০ সালের নির্বাচনেও তিনি প্রার্থিতা পেতে প্রচারণা শুরু করেছেন।

এদিকে, সৌদি আরবের জাতীয় তেল কোম্পানি আরামকো’র দু’টি স্থাপনায় ইয়েমেনিদের হামলার পর দেশটির তেল ও গ্যাস উৎপাদন অর্ধেকে নেমে এসেছে। তবে তা সাময়িক বলে জানিয়েছেন দেশটির জ্বালানিমন্ত্রী আব্দুল আজিজ বিন সালমান। গত শনিবার তিনি বলেন, আরামকো’র স্থাপনায় হামলার কারণে সাময়িকভাবে তেলের উৎপাদন হ্রাস পেয়েছে। তিনি জানান, আবকাইক ও খুরাইস তেল শোধনাগারে হামলার পর তেল ও গ্যাসের উৎপাদন ৫৭ লাখ ব্যারেল কমেছে।

আজ সারাবেলা/সংবাদ/সিআ/আন্তর্জিাতিক

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.