হেঁটে তেঁতুলিয়া থেকে টেকনাফ পৌঁছালেন সাইফুল

সারাবেলা ডেস্কঃ প্রতিবাদের ভাষা কখনো কখনো ব্যতিক্রম হয়। আবার সচেতনতামূলক কাজগুলো ব্যক্তি উদ্যোগেও হয়ে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় গুজবের বিরুদ্ধে সচেতনতা বাড়াতে হেঁটে তেঁতুলিয়া থেকে টেকনাফ পৌঁছেছেন সাইফুল ইসলাম শান্তি। তিনি গত ২১ জুলাই সকাল ৬টায় সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ার তেঁতুলতলা থেকে হেঁটে রওনা দেন।

জানা যায়, পঞ্চগড়-ঢাকা হাইওয়ে দিয়ে হেঁটে বগুড়া হয়ে ঢাকায় প্রবেশ করেন। এরপর সাভার, গাবতলী, নারায়ণগঞ্জ হয়ে কুমিল্লা রোড দিয়ে হেঁটে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার অতিক্রম করেন। পদযাত্রার ৩১তম দিন ২০ আগস্ট সকালে আনুমানিক ১ হাজার কিলোমিটার হেঁটে টেকনাফ জিরো পয়েন্টে এসে পৌঁছান। এখানে পৌঁছতে তাকে পাড়ি দিতে হয়েছে ১৭টি জেলা।

সাইফুল ইসলাম শান্তি বলেন, ‘আমি যখন যেখানে গিয়েছি, জনগণ আমার বক্তব্য মনযোগসহ শুনেছে। রাস্তা-ঘাটে আমাকে দেখে বুকে টেনে নিয়েছে। বেশিরভাগ পথচারী আমাকে পদযাত্রার ব্যাপারে উৎসাহ দিয়েছে। রাস্তা-ঘাটে সবাই পথ চলতে সহায়তা করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘পদযাত্রার ৩১ দিনের মধ্যে আমি দু’দিন অসুস্থ হয়ে পড়েছিলাম। প্ল্যাকার্ড ধরে রাখতে রাখতে হাতে ব্যথা শুরু হয়েছে। পায়ের একটি আঙুলের নখ মরে গেছে। ব্যাগ বহন করতে করতে পিঠে ব্যথা সৃষ্টি হয়েছে। তবুও উদ্দেশ্য সফল করতে লড়ে গেছি।’

উল্লেখ্য, সাইফুল ইসলাম শান্তি দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪ লেভেলের ২য় সেমিস্টারের ফলপ্রত্যাশী। তিনি প্রকাশ্যে রিফাত হত্যার প্রতিবাদ, পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগবে, তিন দিন বিদ্যুৎ থাকবে না ইত্যাদি গুজবের বিরুদ্ধে মানুষকে সচেতন করতে নিজের টিউশনের টাকায় এ পদযাত্রা করেন।

আজ সারাবেলা/সংবাদ/সাআ/ভ্রমণ

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.